প্রেস বিজ্ঞপ্তি : বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য ও সাবেক হুইপ সৈয়দ ওয়াহিদুল আলমের মৃত্যুতে গভীর শোক ও দু:খ প্রকাশ করেছেন বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি (ন্যাপ) চট্টগ্রাম মহানগর শাখা।

শোক বার্তায় স্বাক্ষর করেন বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি (বাংলাদেশ ন্যাপ,চট্টগ্রাম মহানগর শাখা) মহানগরের সভাপতি ওসমাণ গণি সিকদার,সহ-সভাপতি মোজাফফর অহমদ, ডাক্তার আ.ম.ম নুরুল হক,সাধারণ সম্পাদক ডাক্তার আব্দুস শুক্কুর, সাংগঠনিক সম্পাদক বিজয় বড়ুয়া। শোক বার্তায় নেতৃবৃন্দ মরহুমের বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করে শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জ্ঞাপন করে বলেন, জাতীয়তাবাদী ও গণতান্ত্রিক আন্দোলনে সৈয়দ ওয়াহিদুল আলমের অবদান জাতি শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করবে।

উল্লেখ্য, সৈয়দ ওয়াহিদুল আলম রাজধানীর ধানমণ্ডির সেন্ট্রাল হসপিটালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রোববার রাত ৮টার দিকে তার মৃত্যু হয়। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিলো ৭৪। তার দুই কন্যা মেয়ে ব্যারিস্টার শাকিলা ফারজানা ও ব্যারিস্টার আকলিমা ফারজানা সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী। সৈয়দ ওয়াদিদুল আলম ছাত্রজীবন থেকে রাজনীতির সঙ্গে জড়িত ছিলেন। ছাত্রজীবনে তিনি ছাত্রলীগের রাজনীতির সঙ্গে সম্পৃক্ত ছিলেন। বিএনপি প্রতিষ্ঠার পর ওয়াহিদুল আলম এই দলে যোগ দেন। ১৯৮৫ সাল থেকে ১৯৯০ সাল পর্যন্ত তিনি হাটহাজারী উপজেলা চেয়ারম্যান ছিলেন। ১৯৯১ সাল থেকে তিনি তিন বার জাতীয় সংসদের সংসদ সদস্য ছিলেন। ২০০১ সালে ছিলেন জাতীয় সংসদের হুইপ। ২০০৮-০৯ মেয়াদে চট্টগ্রাম মহানগর কমিটির আহ্বায়কের দায়িত্ব পালন করা ওয়াহিদুল আলম দলের গত কেন্দ্রীয় কমিটির তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদকও ছিলেন। পেশাজীবীদের অধিকার আদায়ের সংগ্রামে তার অবদান অবিস্মরণীয়।