নিজস্ব সংবাদদাতা: চট্টগ্রাম সীতাকুন্ড সলিমপুর ফকিরহাটে আনোয়ার ডাক্তার বাড়ির সালাউদ্দীন গং পূর্ব শত্রুতার জের ধরে গাছের আমপাড়াকে কেন্দ্র করে ২৭শে এপ্রিল (শুক্রবার) সকাল ১০ টায় পোস্ট কার্ড বিডি.কম সম্পাদকসিটিজি ক্রাইম টিভি‘র প্রতিনিধি সাংবাদিক শেখ খালেদ মেজবাহ উদ্দীন এর স্ত্রী হাফসা আক্তার এর পা ভেঙ্গে দেওয়ার ঘটনা ঘটেছে।এ সময় আরো আহত হন সাংবাদিক এর ছোট ভাইয়ের অন্তস্বত্ত্বা স্ত্রী রুবিনা আক্তার ।

এলাকাবাসী’র তথ্য মতে জানা যায়, উক্ত সাংবাদিকের স্ত্রী হাফসা আক্তার পরিবারের অন্যান্য জ্যা’দের নিয়ে নিজ বাড়ির গাছ থেকে আম পাড়ছিলেন । এসময় পেছন থেকে অতর্কিত হামলা চালায় সালাউদ্দীন পীং- মৃত সোলতান আহম্মদ , তার শালা রাশেদ পীং – আবুল কাসেম গং।

ঘটনার আকস্মিকতায় হাফসা আক্তার  মাটিতে লুটিয়ে পড়লে তাকে উদ্ধার করতে রুবিনা আক্তার এগিয়ে এলে তাকেও সালাউদ্দীনের স্ত্রী নাজমা ও মেয়েরা এলোপাতাড়ী লাঠি পেটা করতে থাকে ।বাড়ির আশ-পাশের লোকজন দ্রুত এগিয়ে এসে আহত হাফসা আক্তারকে পাষন্ড সালাউদ্দিন ও তাঁর পরিবারের লোকজনের আক্রমন থেকে উদ্ধার করে। এ সময় হাফসা আক্তারের পা ভেঙ্গে যায় এবং রুবিনা আক্তার পেটে প্রচন্ড আঘাত পান ।

এসময় পেশাগত কাজে সাংবাদিক শেখ খালেদ মেজবাহ উদ্দীন বাড়ির বাইরে ছিলেন । আহত হাফসা আক্তার এবং রুবিনাকে নিয়ে সাংবাদিকের মেঝ ভাই ডাঃ শেখ সাইফুদ্দীন খালেদ সীতাকুন্ড উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান ।

উল্লেখ্য সাংবাদিক মেজবাহ উদ্দীন ও সালাউদ্দিনের পরিবারের মধ্যে পারিবারিক সম্পত্তি নিয়ে দীর্ঘদিন থেকে বিরোধ চলে আসছিলো।

এ রিপোর্ট লিখার সময় পর্যন্ত মামলার প্রস্তুতি চলছিল।